মেনু নির্বাচন করুন
পাতা

ভবিষ্যৎ পরিকল্পনা

বাংলাদেশ এখন নিম্ন মধ্যম আয়ের দেশ হিসাবে স্বীকৃত। মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর উদ্দেশ্য হলো দেশকে ২০২১ সালের মধ্যে মধ্যম আয়ের দেশ হিসাবে গড়ে তোলা এবং ২০৪১ সালের মধ্যে উন্নত দেশে উন্নীত করা। এই কাজকে বাস্তবে রূপ দিতে হলে সমবায় সেক্টরের গুরুত্ব অপরিসীম। সমবায়ের মাধ্যমে পুজির সুষ্ঠ ব্যবহার সম্ভব। উন্নত রাষ্ট্রের যে সূচক আছে,যে গুলোর কারণে উন্নত রাষ্ট্রে পরিনত হয়েছে তা আমাদের দেশে এখনো পিছিয়ে আছে। আমরা যদি দারিদ্রতা হ্রাস করি,জনগনের আয় রোজগার বৃদ্ধি করতে পারি,কর্মসংস্থানের সুযোগ তৈরী করতে পারি,দূর্নীতি রোধ করতে পারি,দেশীয়/বিদেশী বিনিয়োগ বৃদ্ধি করতে পারি তাহলে নির্ধারিত সময়ের পূর্বেই আমরা উন্নত রাষ্ট্রে পরিনত হব।আমরা যদি উপরোক্ত বিষয়সমূহ বিশ্লেষণ করি,তাহলে সমবায়ের ধারায় দেশ গঠন করতে হবে। সমবায়ের মাধ্যমে কর্মসংস্থান সৃষ্টি হয়,পুজি গঠিত হয়,সমাজে অর্থের প্রবাহ সৃষ্টি হয়,ক্ষুদ্র ক্ষুদ্র ব্যবসা বা কারখানা তৈরী করা যায়। এর সমাজে বেকারত্ব দূর করা সম্ভব। গাইবান্ধা জেলায় অভাবী জনগনের সংখ্যা বেশী। কারণ এ জেলায় আশানুরুপ কল-কারখানা তৈরী হয়নি। এ জেলার জনগন কাজের সন্ধানে দেশের অন্যান্য জেলায় বা বিদেশে গমন করে। তাই এই জেলার মানুষের আর্থসামাজিক অবস্থার উন্নতি হয়নি। এ জন্য টেকসই সমবায় সমিতি গঠন করে গাইবান্ধা জেলার সামগ্রীক উন্নয়ন ঘটানোই হচ্ছে জেলা সমবায় কার্যালয়ের এর প্রধান ভবিষ্যৎ লক্ষ্য।

ছবি


সংযুক্তি


সংযুক্তি (একাধিক)



Share with :

Facebook Twitter